নীতিমালা

ভূমিকাঃ

সংস্কার একটি ব্যতিক্রমধর্মী ব্লগ সাইট। অন্য দশটি ব্লগ সাইটের মত এটি কোন গতানুগতিক ব্লগ সাইট নয়। মূলত: সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার বিভিন্ন ক্ষেত্রের অসঙ্গতিগুলো খুঁজে বের করে গঠনমূলক আলোচনা, সমালোচনা ও পরামর্শ উপস্থাপন করাই সংস্কার এর মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

কারা লিখবেন?

সমাজের যেকোন প্রগতিশীল বুদ্ধিজীবি/চিন্তাশীল ব্যক্তি/ব্যক্তিবর্গ স্ব-উদ্যোগে নিজের/নিজেদের ভাবনাগুলো প্রকাশ করবেন সংস্কারে। আগ্রহীদের লেখা প্রকাশ করার জন্য www.sangsker.tk এবং www.sangsker.do.am নামে দু’টি সাইট রয়েছে। লেখার বিষয়বস্তু আকারে ছোট হলে www.sangsker.do.am সাইটে এবং লেখার বিষয়বস্তু আকারে বড় অর্থাৎ বিশদ আকারের রচনা হলে সংস্কার এর www.sangsker.tk সাইটে প্রকাশ করতে হবে।

কী লিখবেন?

আমাদের রাষ্ট্র ও সমাজ ব্যবস্থার বিভিন্ন ক্ষেত্রে রয়েছে নানা অসঙ্গতি যা ইচ্ছা করলেই পরিবর্তন, পরিবর্ধন ও পরিমার্জন করে সুন্দর ও কল্যাণময় সমাজ ব্যবস্থা গড়া সম্ভব। সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার বিভিন্ন ক্ষেত্রের অসঙ্গতিগুলো খুঁজে বের করে গঠনমূলক আলোচনা, সমালোচনা ও পরামর্শ দিয়ে আপনার সুচিন্তিত ভাবনা লিপিবদ্ধ করে সংস্কারে পোস্ট করুন। লেখা স্বতন্ত্র হওয়াই ভাল তবে তথ্যবহুল হলে তথ্যসূত্র উল্লেখ করে অন্যকোন মিডিয়াতে প্রকাশিত লেখা প্রকাশ করলেও গ্রহণ করা হবে।

কিভাবে লিখবেন?

এই ব্লগে লেখার জন্য প্রথমেই নিজের ব্যবহৃত ইমেইল/ফেসবুক/টুইটার আইডি ব্যবহার করে সাইনআপ/লগইন করতে হবে। যেকোন নিবন্ধনকৃত সদস্য কর্তৃক পোস্ট করা হলে তা আমাদের এডমিন প্যানেল কর্তৃক যাচাই-বাছাই করে গ্রহণযোগ্য হলেই কেবল তা অনুমোদন করা হবে। অন্যথায় যেকোন অবাঞ্চিত লেখা বা ছবি দৃশ্যমনা হওয়ার আগেই তা মুছে ফেলা হবে। তাই তথ্যবহুল সুন্দর ও মার্জিত লেখা পোস্ট করুন।

ব্লগ লেখার ধরণ এবং বিষয়বস্তু:

  1. ব্লগ লেখার ভাষা বাংলা ও ইংরেজী দুইই হতে পারে। তবে এক বা দুই লাইনের ব্লগ লেখা থেকে বিরত থাকার জন্য সবাইকে পরামর্শ দেয়া যাচ্ছে। আমরা চাচ্ছি লেখক সময় নিয়ে যেমন তার লেখাটা লিখবেন, একই ভাবে পাঠকরাও সময় নিয়ে তা’ পড়ে মুল্যায়ন করবেন।
  2. লেখার বিষয়বস্তু অবশ্যই রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক সমস্যা কিংবা অসঙ্গতি বিষয়ক হতে হবে।
  3. আমরা লেখার গুণগত মানের দিকে এবার একটু নজর দিতে চাই। বানানের ব্যাপারে যত্নশীল হবার অন্য আহবান জানানো যাচ্ছে সকল সদস্যের প্রতি। অনেক সুন্দর লেখাও বানান ভুলের কারণে গ্রহণযোগ্যতা হারায়। কথ্য বা মজা করে লেখা মন্তব্যের ব্যাপারে কিছুটা শৈথিল্য অবশ্যই থাকবে।
  4. বিপরীত মতের তর্ক বিতর্ক সমৃদ্ধ পোস্টে সবাইকে ভাষা প্রয়োগে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানানো হচ্ছে। আমরা নিজেরা নিজেদের আলোচনায় সহিষ্ণু থাকলে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সহজেই এড়ানো যায়। তবে তারপরও এধরণের মতাদর্শিক বিতর্ক কূট-তর্কে রূপান্তরের অবস্থান তৈরি করলে পরিস্থিতির স্বাভাবিকতা রক্ষার্থে জংশন এডমিন প্যানেলের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হিসেবে উপস্থাপন করা হবে।
  5. অন্য কোথাও থেকে (অন্তর্জাল বা প্রিন্ট) কোন লেখার অংশ বিশেষ বা সম্পূর্ণ লেখা ব্যবহার করতে হলে সেই লেখার উৎস এবং লেখকের নাম উল্লেখ করতে হবে। কোন উদ্ধৃতি বা রেফারেন্সের ক্ষেত্রেও এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। যেসব লেখার স্বত্ত্ব সংরক্ষিত সেগুলোর ক্ষেত্রে লেখক বা স্বত্ত্বাধিকারীর কাছ থেকে প্রয়োজনীয় অনুমতি নিতে হবে। তবে সংস্কার যেহেতু একটি অলাভজনক এবং অবাণিজ্যিক প্রকল্প তাই, এখানে কপিরাইটের কিছু নিয়ম শিথিল করা হচ্ছে। যেমন, বিভিন্ন বানিজ্যিক মাধ্যমে প্রকাশিত লেখা অনুবাদের ক্ষেত্রে উক্ত লেখার স্ব ত্ত্বাধিকারীর অনুমতি না নিলেও চলবে, যদি অনুমতির সাথে অর্থের ব্যাপার জড়িত থাকে। কারণ যেকোন বানিজ্যিক মাধ্যমই তাদের লেখার অনুবাদ বা অন্যান্য ব্যবহারের জন্য মোটা অংকের অর্থ দাবী করে। সেই নিয়ম মেনে চলতে গেলে বাংলা ভাষায় আর কোন কিছুরই অনুবাদ করা যাবে না। তাই সংস্কারে প্রকাশিত এ ধরণের লেখাগুলোকে “Fair use rationale” এর অধীনে কপিরাইটভুক্ত করা যাবে। তবে সেক্ষেত্রে অবশ্যই লেখার সাথে উৎস ও লেখকের নাম এবং অনুমতি না নেয়ার ব্যাপারটি উল্লেখ করতে হবে।
  6. কেউ একাধিক ছদ্মনাম বা নাম ব্যবহার করে ব্লগে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে বলে প্রমাণ পাওয়া গেলে তার সবগুলো নাম বা ছদ্মনাম বাতিল করা হবে, অর্থাৎ তার সবগুলো নামের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে।
  7. অন্য কাউকে আক্রমণ করে কিছু বলা যাবে না। এমন কিছু করলে ব্লগ কর্তৃপক্ষ আক্রমণকারীর উক্ত লেখা বা মন্তব্য মুছে ফেলতে পারবেন। এছাড়া কেউ আক্রান্ত বোধ করলে ব্লগ কর্তৃপক্ষকে জানাতে বলা হল। সেক্ষেত্রে অভিযোগ পর্যালোচনা করে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
  8. কোন লেখক নিজে থেকে তার ব্লগ মুছে ফেলতে পারবেন না। কোন ব্লগ মুছতে চাইলে এডমিন বরাবর কারণ জানিয়ে মেইল করলে এডমিন তদানুযায়ী যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।
  9. কোন লেখকের লেখার বিষয়বস্তু সুন্দর হলে ছোটখাট ভুলত্রুটি হলে তা এডমিন কর্তৃক সংশোধন করে প্রকাশ করা যেতে পারে।

মন্তব্য করার ক্ষেত্রে:

  • ব্লগের প্রাণ হল মন্তব্য। এটি আছে বলেই ব্লগ মাধ্যমটা স্বকীয়। তাই সব সময় চেষ্টা করুন মন্তব্যের মাধ্যমে অন্যকে উৎসাহিত করার। মন্তব্য দেখে কষ্ট পেয়ে কেউ যেন অচল না হয়ে পড়ে।
  • হালকা চালের মন্তব্য করার ক্ষেত্রে কোন বাধ্যবাধকতা না থাকলেও পোস্ট লেখকের প্রতি তার লেখার প্রতি সম্মান দেখিয়ে আরেকটু সতর্কতার সাথে মন্তব্য করতে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।
  • মন্তব্যে ইংরেজি বাংলা মিশিয়ে কিংবা ইংরেজির প্রাধান্য বা ইংরেজি অক্ষরের ব্যবহার মন্তব্য করা যাবে। তবে বাংলা ও ইংরেজী ব্যাতিত অন্য ভাষায় করা মন্তব্য প্রকাশের নিশ্চয়তা দেয়া হচ্ছে না।
  • মন্তব্যে ইমোটিকন ব্যবহারে একটু মিতব্যয়ী হবার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। অতিরিক্ত ইমোটিকন সমৃদ্ধ মন্তব্য স্প্যাম হিসেবে চিহ্নিত হবার সম্ভাবনা থাকে, পাশাপাশি তা পোষ্টের সৌন্দর্য্যহানি ঘটায়।
  • স্বাধীনভাবে নিজের মত প্রকাশের স্বাধীনতা আপনার আছে। তবে সেই স্বাধীনতা ব্যবহার করতে গিয়ে অন্যকে আক্রমণ করবেন না।
  • একজন লেখক তার পোস্টে অন্য কারও লেখা মন্তব্য মুছে ফেলতে পারবেন না। আপত্তিকর মনে হলে আপনি মন্তব্যের মাধ্যমে তা জানাতে পারেন।

 এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ